যতটা সময় যাচ্ছে জামানার সাথে তালমিলিয়ে চলাটা ও খুব কঠিন বাস্ততবা স্বীকার করতে হচ্ছে— !দিন দিন মানুষ মন থেকে আস্থা বিশ্বাস মায়া ভালবাসা সহানুভূতি ওঠে যাচ্ছে ! ঈমান নিয়ে মরতে পারবো কি না জানি না ! কি নিয়ে কেয়ামতের ময়দানে আল্লাহর কাছে হাজির হব !A.s.b#

তিন শ্রেণীর মানুষ কখনো জান্নাতে প্রবেশ করতে পারবে না । (১) মা-বাবার অবাধ্য সন্তান। (২) স্ত্রীকে বেপর্দা ও পরপুরুষের সাথে মিশতে দেয়া স্বামী। (৩) এবং পুরুষের সাদৃশ্য অবলম্বন কারী নারী। _হযরত মোহাম্মদ (সোঃ).a.s.b#

A bright groom marriage day treatments her father in law house !

বউ যখন ডাক্তার বা নার্স হয় ! বিয়ের দিনও শশুর বাড়ির রুগির সেবাই নিয়োজিত হতে হয় ! ডাক্তার বলে কথা হর হামেশা কি এমন পাওয়া যায় ,কারন ডাক্তারি পেশা টাই আলাদা কদর !কিন্তু অসাধু ডাক্তার দের জন্য সাধারণ মানুষের ভোগান্তি পেতে হয় !সারা দেশে ! মানুষ যেমন হয় মন ভাল ত জগত ভাল !র নিজে ভাল ত তার পেশা ভাল ! এই ডাক্তার জন্য শুভ কামনাa.s.b#

About boring in this corona moments!

-করোনার এই সময়টা খুবই খারাপ যাচ্ছে ,খুবই বরিং যাচ্চে তাই ঘড়ির বেটারি টা খুলে রেখেছি ,সময়কে তো র খুলতে পারবো না !কারন অপেক্ষা যতই করছি ততই যেন কিছু হচ্ছে না,তবুও শক্ত মনে দাড়িয়ে আছি দেখি নিয়তি কোথায় নিয়ে যায় হ.য.ব.র.ল.a.s.b#

Without money valueless merit !

বতমানে আমাদের প্রেক্ষাপটে টাকা থাকলে সমাজে অযোগ্য ব্যক্তি যোগ্য হয়ে যায় এবং জ্ঞান দেওয়ার ছাড়পত্র ও পেয়ে যায়। টাকা না থাকলে উচ্চ শিক্ষিত লোকেরাও বোকা হয়ে যায়।👉পরীক্ষিত.a.s.b#

A Graduation security got a job !

ঘটনাটি নাইজেরিয়ায় একটি ব্যাংকের “
ব্যাংকের ম্যানেজার ব্যাংকার নিয়োগ পরীক্ষার জন্য ব্যাংকে প্রবেশের পথে উক্ত ব্যাংকে কর্মরত সিকিউরিটি গার্ড অত্যন্ত বিনয়ের স্বরে বলল স্যার আমি গ্র্যাজয়েট আমাকে কি উক্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহনের সুযোগ দেয়া যায় । ব্যাংক ম্যানেজার তার আচরন ও আত্মবিশ্বাস দেখে পরীক্ষার সুযোগ করে দিলেন এবং সিকিউরিটি গার্ড লোকটি প্রথম হলেন । প্রথম ছবিটি ম্যানেজার সাহেব শুক্রবার দিন সর্বশেষ সিকিউরিটি গার্ডের সাথে তুললেন এবং পরের ছবিটি সোমবার যখন সে ব্যাংকার তখন সহকর্মী হিসেবে তুললেন ।এজন্য উচিত জীবনে কিছু হওয়ার জন্য র করার জন্য নিজের দক্ষতা অজন করা !কাজ এবং পড়াশুনা জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে খুব ই জরুরী ! আমাদের দেশে হলে তো দমক দিয়ে বসিয়ে রাখতো !অবশেষে আমাদের প্রত্যেক এর মনে রাখা উচিত মানুষ মানুষের জন্য !জীবন জীবিকার জন্য !কাকে কখন কোথায় কাজে লাগে বলা যায় না !
আল্লাহ কার জন্য কি রেখেছেন তা কেউ জানি না শুধু বিশ্বাস রাখুন! A.s.b#

About father!

বাবা!!!!!!
একজন স্ত্রী ১৭ বৎসর ঘর-সংসার করার পর স্বামীর সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে বলেন,
“পুরুষগণ আল্লাহ প্রদত্ত এক অশেষ নেয়ামত”।কেননা,
তারা স্বীয় যৌবনকে নিজ স্ত্রী-সন্তানদের জন্য কুরবান করে দেয়। তাদের উপর ভর করেই আমরা জীবনের সুখ-শান্তি ও অপার সৌন্দর্য উপভোগ করে থাকি।
পুরুষ জাতি তো এমন এক স্বত্বা, যারা স্বীয় সন্তানদের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎের জন্য সর্বাত্মক পরিশ্রম করে থাকেন।
কিন্তু এমন কঠোর পরিশ্রম আর কুরবানী সত্যেও আমরা তাদের জীবনকে বিষিয়ে তুলি একরাশ হতাশা আর দুঃখ-কষ্ট দিয়ে।
যদি তারা একটু ফ্রেশ ও স্বাচ্ছন্দ্যের জন্য বাহিরে যায় তাহলে বলি, ‘বে-পরওয়াহ’
যদি ঘরে বসে থাকে তাহলে বলি, অলস ও অকর্মণ্য!
যদি সন্তানদের ভুলের জন্য শাসন করে তাহলে বলি, নির্দয় ও হিংস্র!
যদি স্ত্রীকে চাকরী করা থেকে বারণ করে তাহলে বলি, সেকেলে বা অনাধুনিক!
যদি মায়ের সাথে সুসম্পর্ক রাখে তাহলে বলি, ‘মা পাগল’
যদি স্ত্রীর সাথে প্রেমময় আচরণ করে তাহলে বলি, বৌ পাগল!
এতদসত্যেও একজন পুরুষ পৃথিবীর এমন বীর, যে তার সন্তানদেরকে সর্বক্ষেত্রে নিজের চেয়েও সুখি দেখতে চায়।
একজন পিতা এমন এক রোবট, যিনি তার সন্তানদের থেকে সর্বদিক থেকে নৈরাশ হওয়ার পরেও তাদের মনপ্রাণ উজাড় করে ভালোবাসে এবং সর্বদা তাদের মঙ্গলের জন্য দুআ করে।
একজন বাবা তো এমন এক মহাপুরুষ, যিনি স্বীয় সন্তানদের সকল কষ্ট সহ্য করেনেন। তখনও, যখন সন্তান বাবার পায়ের উপর পা রেখে চলতে শিখে এবং তখনও, যখন বড় হয়ে বাবার বুকের উপর পা রেখে চলে যায়। একজন বাবা পৃথিবীর এমন এক নেয়ামত, যিনি সারাজীবনের কষ্টার্জিত মহামূল্যবান সম্পদগুলো অকাতরে সন্তানদেরকে দিয়ে দেন।
যদি মা সন্তানদেরকে ৯ মাস পেটে ধারণ করে থাকেন; তবে বাবা সারাজীবন স্বীয় ব্রেইনের মধ্যে ধারণ করে চলতে থাকেন।
পৃথিবীটা ততক্ষণই সু্ন্দর ও উপভোগ্য মনে হয় যতক্ষণ ‘বাবা’ নামক সত্বার ছায়া মাথার উপর বিরাজমান থাকে।
তাই বেঁচে থাকলে বাবাদের কদর করুন। চলে গেলে তাঁদের জন্য দু’হাত তুলে দু’আ করুন।
আল্লাহ তা’আলা সকলের মা-বাবাকে সুখে-শান্তিতে রাখুন। আমীন। (সংগ্রীত)

In Life about success or failure!

জীবনে প্রতিষ্ঠিত হতে পারলে সবাই আপনাকে মূল্যায়ন করবে !সে টা হতে পারে হালাল যে কোন পেশায় !যখন আপনী অর্থহীন সাধারণ থাকবেন তখন আপনার কোন মূল্যায়ন (দাম)থাকবে না ! যা বতমান সমাজের প্রেক্ষাপট.a.s.b#

Create your website at WordPress.com
Get started